Friday, February 23, 2024

FIFA WORLDCUP: বিশ্বরেকর্ড-বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে একটি ম্যাচেই তৈরী হলো একাধিক রেকর্ড। গতকাল FIFA WORLDCUP এ আর্জেন্তিনা ও নেদারল্যান্ডস এর মধ্যে ছিলো কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লড়াই। এই ম্যাচে একদিকে রেকর্ড গড়লেন লিওনেল মেসি অন্যদিকে রেফারি ম্যাতিও লাহোজ।

গতকাল ফুটবলপ্রেমীদের এক রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ উপহার দিয়েছে বিশ্বকাপ। মধ্যরাত্রে কাতারের লুসেইল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় আর্জেন্তিনা ও নেদারল্যান্ড। স্টেডিয়ামে ভাসছে মেসির জয়ধ্বনি। এরই মাঝে মেসির অ্যাসিস্ট থেকে গোল করে প্রথমার্ধেই আর্জেন্টিনাকে এক শূন্য গোলে এগিয়ে দেয় মলিনা। দ্বিতীয়ার্ধে নেদারল্যান্ড শক্ত হতে ডিফেন্স সামাল দিলেও ৭২ মিনিটে ফের পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা।

পেনাল্টি বক্সে এবার পা রাখেন মেসি। নোপার্টকে চমকে দিয়ে তার বাঁ দিক ঘেঁষে বল জড়িয়ে দেন গোলে। আর্জেন্টিনা এগিয়ে যায় ২-০ তে। এখান থেকেই ম্যাচের গতি পাল্টে যায়। নেদারল্যান্ডের ওয়েঘোর্সট জোড়া গোল করে ম্যাচের সমতা ফিরিয়ে আনে। সবশেষে পেনাল্টি শুট আউটে মার্টিনেজের দক্ষতার সামনে হার মানতে হয় নেদারল্যান্ডসকে। একই সঙ্গে আর্জেন্তিনা পৌঁছে যায় বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে। আর্জেন্টিনার পরবর্তী প্রতিপক্ষ লুকা মড্রিচের  ক্রোয়েশিয়া।

ম্যাচের প্রথমার্ধের অ্যাসিস্টেই মেসি গড়ে দিয়েছে রেকর্ড। পেলে কে ছাপিয়ে বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ অ্যাসিস্টের রেকর্ড এখন মেসির দখলে। এতদিন বিশ্বকাপের মঞ্চে ৪ টি গোল অ্যাসিস্ট করে পেলের নাম ছিলো শীর্ষে, গতকাল বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে ৫ নম্বর অ্যাসিস্ট এর মধ্যে দিয়ে মেসি হয়ে গেলেন বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোল অ্যাসিস্টকারি ফুটবলার। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে মেসির অ্যাসিস্ট থেকে আর্জেন্টিনার হয়ে প্রথম গোলটি করেন মলিনা। বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে সর্বোচ্চ গোল অ্যাসিস্টকারি প্লেয়ার হওয়ার পাশাপাশি, বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার সর্বোচ্চ গোলদাতার আসনে এখন লিওনেল মেসি।

একা মেসির জাদুতেই ক্ষান্ত হয়নি আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ড ম্যাচ। গতকালের গোটা ম্যাচটিই নাম তুলেছে ইতিহাসের পাতায়। বিশ্বকাপের মঞ্চে এই প্রথম একটি ম্যাচ ১৭টি হলুদ কার্ড দেখলো। যার মধ্যে আর্জেন্টিনা হলুদ কার্ড দেখেছে ৮টি এবং নেদারল্যান্ড ৯টি। এর আগে ২০০৬ সালে পর্তুগাল বনাম নেদারল্যান্ডস এর প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ ১৬ টি কার্ডের স্বাক্ষী হয়েছিলো।

তবে গতকালের ম্যাচ ভেঙ্গে দিলো অতীতের সব রেকর্ড। এই ম্যাচে রেফারির দায়িত্বে ছিলেন স্পেনের অ্যান্টনিও ম্যাথিউ লাহোজ। বিশ্বকাপের মঞ্চে তিনি তৈরী করেছেন আরও একটি নতুন রেকর্ড। হলুদ কার্ডের পাশাপাশি দেখিয়েছেন লাল কার্ডও। নেদারল্যান্ডের ডামফ্রেসকে দু’বার হলুদ কার্ড দেখিয়ে ম্যাচের শেষদিকে লাল কার্ড দেখান লাহোজ। এর সাথে হলুদ কার্ড দেখেছেন লিওনেল মেসিও। প্রসঙ্গত, মেসিকে ক্লাব ম্যাচেও লাল কার্ড দেখিয়েছিলেন লাহোজ। ম্যাচের শেষে রেফারির বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন মেসি।

আর্জেন্তিনা সহ মেসির অনুগামীদের এই ম্যাচ যেমন দিয়েছে স্বস্তির নিঃশ্বাস। তেমনি গোটা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের কাছে এই ম্যাচ হয়ে থাকবে চিরস্মরণীয়।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Stay Connected

3,541FansLike
3,210FollowersFollow
2,141FollowersFollow
2,034SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles