Monday, June 17, 2024
More

    পশ্চিমবঙ্গে খনিজ ভান্ডার, আবারো হদিস মিলেছে তরল সোনা খনিজ তেল এর

    বাংলার বুকে তেলের হদিস। উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁয় খনিজ তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাসের সন্ধানে সমীক্ষা শুরু করেছে ও.এন.জি.সি। রাজ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার খনিজ সম্পদ আহরণে আগ্রহ দেখিয়েছে ভারতীয় কোম্পানি ‘ওয়েল এন্ড ন্যাচারাল গ্যাস কর্পোরেশন’ বা ও.এন.জি.সি। একবার তেল ও গ্যাসের উত্তোলন শুরু হলে রাতারাতি ভোল পাল্টাবে বনগাঁ সহ পার্শবর্তী এলাকাগুলির।

    ২০১৮ সাল, পশ্চিমবঙ্গের বুকে প্রথম তেলের খনির হদিশ পাওয়া গেছিল। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাইগাছি,অশোকনগরে। এখনও পর্যন্ত এটাই বাংলার বুকে একমাত্র তেলের খনি। খনিজ ভান্ডারের হদিশ একদিকে,মানুষের মধ্যে আশার জোয়ার জাগিয়েছিল, অন্যদিকে রাজ্যের মুকুটে যোগ করেছিল নতুন পালক। প্রথমে বাইগাছি ও পরে অশোকনগরে তেল উত্তোলনের দ্বিতীয় ইউনিট চালু করে ও.এন.জি.সি ।

    ও.এন.জি.সি এর তথ্য অনুযায়ী, সেখানে কুয়ো পিছু দৈনিক ১ লক্ষ ঘনমিটার গ্যাস এবং ১৫ থেকে ১৮ ঘনমিটার তেল উৎপাদন সম্ভব। গত বছর ২২ শে ডিসেম্বর পুরোদমে কাজ শুরু হলেও বর্তমানে বন্ধ রয়েছে এই খনিজ সম্পদ উত্তোলন কেন্দ্র। মানুষের মনে একে ঘিরে গুঞ্জনও তৈরি হয়েছিল । তবে জল্পনা কাটিয়ে এখানে শীঘ্রই চালু হবে খনিজ তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলনের কাজ।

    এর মধ্যে আরো একবার তেলের হদিশ মিলল উত্তর ২৪ পরগনায়। রাজ্যের রাজধানী কলকাতা থেকে মাত্র ৪৭ কিলোমিটার দূরে বনগাঁ হতে চলেছে রাজ্যের নতুন তেল ভান্ডার। সমীক্ষার জন্য ইতিমধ্যে ড্রিল সাইট করা হয়েছে এই এলাকায়। দফায় দফায় চাষীদের সাথে বৈঠক চলছে জমি অধিগ্রহণ নিয়ে।

    ও এন.জি.সি এর মতে বনগাঁ, গাইঘাটা সহ উত্তর ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকায় প্রচুর খনিজ সম্পদ পাওয়া যেতে পারে। বনগাঁর মাঝেরগ্রাম স্টেশন লাগোয়া কামদেবপুর এবং আমডাঙার রায়পুর মৌজাতে তেল ও গ্যাসের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। কামদেবপুরে ড্রিল সাইট গড়তে আট একর জমি প্রয়োজন। রায়পুরে ড্রিল সাইট গড়ার জন্য প্রায় সাড়ে সাত একর জমি চিহ্নিতকরণের কাজও সম্পূর্ণ।

    সামনেই পঞ্চায়েত ভোট। সাধারণত ভোটের আসরে আমরা শাসক-বিরোধী দুদলকেই দুজনের বিরুদ্ধে কুৎসা রচনা দেখতে অভ্যস্ত। কিন্তু উন্নয়নের কথায় দুজনেরই একমত। রাজ্যে খনিজ সম্পদ প্রাপ্তির খবরে দুই দলই স্বাগত জানিয়েছে কেন্দ্র সরকারি সংস্থা ও.এন.জি.সি কে।

    বনগাঁর তৃণমূল নেত্রী কালুপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান-মুক্তি সরকারের কথায়, আমার এলাকায় খনন কাজ শুরু হয়েছে, খুবই আনন্দের খবর, যদি এখানে খনিজ তেল পাওয়া যায় তাহলে কালুপুর সহ বনগাঁর উন্নয়ন হবে। অন্যদিকে, বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মণ্ডলের কথায়, যদি এই এলাকায় খনিজ তেল পাওয়া যায় তাহলে কর্মসংস্থান হবে। এলাকার উন্নয়ন হবে।

    সাধারণত কোন অঞ্চলে একটা বড় শিল্প গড়ে উঠলে তাকে কেন্দ্র করে অনেকগুলি ছোট, মাঝারি শিল্প গড়ে ওঠে। এই মডেলের ভিত্তি করে বনগায় যদি তেল ও গ্যাস উত্তোলন শুরু হয় তাহলে প্রভূত উন্নতি হবে ওই এলাকার স্থানীয় মানুষদের। তাদের কর্মসংস্থান হবে এবং জীবনযাপনের মান বাড়বে।

    Related Articles

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    Stay Connected

    3,541FansLike
    3,210FollowersFollow
    2,141FollowersFollow
    2,034SubscribersSubscribe
    - Advertisement -

    Latest Articles